প্রতি মাসে মাত্র 1000 টাকা করে জমিয়ে অবসরের পর ফেরত পান 35 লক্ষ টাকা! দারুন সুযোগ দিচ্ছে সরকার।

নিজস্ব প্রতিবেদন :-আমরা সারা জীবন ধরে উপার্জন করি মূলত যে কারণে জন্য সেটি হচ্ছে শেষ বয়স ।শেষ বয়সে এসে যাতে অর্থের অভাবে কষ্ট করতে না হয় তার জন্য আমরা উপার্জন করি এবং বলাবাহুল্য সেখান থেকে কিছুটা হলেও সঞ্চয় করি। কিন্তু এমন কোন জায়গা রয়েছে যেখানে সঞ্চয় করলে নির্দিষ্ট সময় পর ভালো রিটার্ন পাওয়া যাবে ?সেই তথ্য কি আপনার কাছে জানা আছে ?যদি যেন না থাকে থাকে তাহলে আজকের এই প্রতিবেদন আপনার জন্য। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে কি প্রকল্প জারি করা হয়েছে যার নাম ন্যাশনাল পেনশন স্কিম এখানে মাত্র 1000 টাকা প্রতি মাসে জমা করে আপনি পেয়ে যেতে পারেন 35 লক্ষ টাকা আরও বিস্তারিত

এই পেনশন স্কিম এর নাম হচ্ছে ন্যাশনাল পেনশন স্কিম। এখানে আপনি প্রতিমাসে 1000 টাকা করে জমা রাখলে একটা নির্দিষ্ট সময় পর পরই 35 লক্ষ টাকা রিটার্ন পাবেন পাশাপাশি শর্তসাপেক্ষে এমনটা জানানো হয়েছে অতি অবশ্য আপনাকে ভারতের নাগরিক হতে হবে এবং আপনার বয়স হতে হবে 18 থেকে 65 বছরের মধ্যে। ন্যাশনাল পেনশন স্কিম একজন ব্যক্তি একাধিক অ্যাকাউন্ট কখনোই খুলতে পারবেনা ।তবে একজন ব্যক্তি একটি ন্যাশনাল পেনশন স্কিম এর একাউন্ট এবং একটি অটল পেনশন স্কিম এর অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন।

কিভাবে আপনি হাজার টাকা জমা দিয়ে 35 লক্ষ টাকা পাবেন তার একটা স্বচ্ছ ধারণা তুলে ধরা হলো।ধরুন আপনার বয়স ২৬ বছর এবং আপনি ন্যাশনাল পেনশন সিস্টেম -এ একটি অ্যাকাউন্ট খুলেছেন। আপনি যদি প্রতি মাসে ১,০০০ টাকা বিনিয়োগ করেন, তবে এটি ৩৪ বছর চালিয়ে যেতে হবে। এতে আনুমানিক ১০ শতাংশ রিটার্ন পাবেন। ।আপনি যদি এর উপর ৪০ শতাংশ অ্যানুইটি ক্রয় করেন, তবে এতে প্রত্যাশিত রিটার্ন হবে ৬ শতাংশ। প্রকৃতপক্ষে, অ্যানুইটির কমপক্ষে ৪০ শতাংশ কেনা আবশ্যিক।

এই পুরো স্কিমটি গ্রহণ করলে অবসর গ্রহণের পর মোট বিনিয়োগ হবে ৪ লাখ ৮ হাজার টাকা। একই সঙ্গে, মোট পরিমাণ হবে ৩৪ লাখ ৫৪ হাজার টাকার কাছাকাছি। অবসর গ্রহণের পর প্রতি মাসে পেনশনের পরিমাণ হবে প্রায় ৭ হাজার টাকা।এই পেনশনের কথা জানতে পেরে রীতিমতো অনেকেই খুশি হয়েছে এবং এমনটা ভেবেছেন যে শেষ বয়সে হয়তো তাদেরকে আর কারোর উপর নির্ভরশীল হতে হবে না।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button