বাড়িতেই ঘরোয়া পদ্ধতিতে এই প্যাক তৈরি করে রাতে শোবার আগে মুখে লা’গালে ত্বক হয় দারুন ফর্সা ও চকচকে, রইল পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন:আমরা নিজেদের ত্বক উজ্জ্বল এবং চকচকে করার জন্য প্রায় সময় নানান ধরনের বাজারচলতি ক্রিম এবং অন্যান্য জিনিস ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু হয়তো অনেকেই জানিনা এই ক্রিমগুলো আমাদের ত্বক আরও রুক্ষ-শুস্ক করে দিতে পারে। কারণ এই ক্রিমগুলো বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই হয় স্টেরয়েড ধর্মী।

যার ফলস্বরূপ দীর্ঘদিন ব্যবহার করলে খুব সহজেই ত্বক উজ্জ্বল হওয়ার বদলে আরো কালো হয়ে যায়।আজকে আমরা একদম ঘরোয়া উপায়ে প্রাকৃতিক পদ্ধতি অবলম্বন করে একটি ফেস প্যাক তৈরির পদ্ধতি আলোচনা করব। এই প্যাকটি নিয়মিত মুখে লাগাতে পারলে খুব সহজেই আপনার ত্বক হয়ে উঠবে উজ্জ্বল প্রকৃতির। এবং যদি ত্বকে কোন রকম দাগ ছোপ জাতীয় সমস্যা থেকে থাকে তাহলেও তা নিরাময় হয়ে যাবে। তাহলে আসুন আর দেরি না করে শুরু করা যাক।

প্রথমে একটি পাত্রে কাঁচা দুধ নিয়ে নিন। এরপর তার মধ্যে স্বল্প পরিমাণে অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে নিতে হবে। এই অ্যালোভেরা জেল চাইলে আপনারা বাজার থেকেও কিনতে পারেন এবং ঘরেও বানিয়ে নিতে পারেন।এবার স্নান করার ঠিক কিছু সময় আগে এই মিশ্রণটি ত্বকে ভালো করে ম্যাসাজ করে লাগিয়ে নিন। মিনিট পনেরো সময় পর ঠাণ্ডা পরিষ্কার জলে ভালো করে মুখ ধুয়ে নিতে হবে।

দ্বিতীয় ধাপে আবারও একটি বাটিতে এক চামচ পরিমাণ কাঁচা দুধ নিয়ে নিন। এরপর একটি মাঝারি সাইজের আলু থেকে রস বের করে নিয়ে ওই দুধের মধ্যে মিশিয়ে নিতে হবে। প্রাচীনকাল থেকেই সৌন্দর্য রক্ষায় আলুর রসের ব্যবহার চলে আসছে। যেকোনো দাগ ছোপ নিরাময় করার ক্ষেত্রে আলুর রস অত্যন্ত উপকারী একটি পদার্থ।

চাইলে আপনারা এই মিশ্রণের মধ্যে লেবুর রস ও মিশিয়ে নিতে পারেন। কারণ অনেকের ত্বকে লেবু মানানসই হয় না।যাইহোক এই দুটি পদ্ধতি যদি সপ্তাহে নিয়মিত আপনারা অবলম্বন করতে পারেন তাহলে খুব সহজেই যেকোন সমস্যা থেকে মুক্তি লাভ করবেন। এছাড়াও চন্দন গুঁড়োর সাথে সামান্য গোলাপজল মিশিয়ে আপনি মুখে লাগিয়ে রাখতে পারেন। অন্যান্য পদ্ধতির মতো এই পদ্ধতিটিও দাগ দূর করতে বিশেষ উপকারী।

ত্বকে থাকা বিভিন্ন দাগের ওপর প্রতিদিন হালকা করে মধু লাগাতে পারেন।মনে রাখবেন উপরিউক্ত সমস্ত পদ্ধতিগুলোই একেবারে বিশুদ্ধ প্রাকৃতিক উপায়। এগুলিতে কোনরকম রাসায়নিক পদার্থের ব্যবহার প্রায় নেই বললেই চলে।যার ফলস্বরুপ এগুলো আপনার ত্বকে কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করে না।তাই যদি আপনি নিজের সৌন্দর্য রক্ষায় আগ্রহী হয়ে থাকেন তাহলে সহজেই এই পদ্ধতি গুলি ব্যবহার করতে পারেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button