বিকাশ ভবন না নবান্ন? কোথায় আবেদন করলে পাবে নিশ্চিত স্কলারশিপ? জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পাশ করার পর প্রত্যেকে এই খোঁজখবর লাগায় যে কোথায় কোন ধরনের স্কলারশিপ দেওয়া হচ্ছে । কারণ এই পশ্চিমবঙ্গে এমন বহু মানুষ রয়েছে যারা পড়াশোনার খরচ বহন করতে অক্ষম । তাদের জন্য পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার তাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে বিভিন্ন স্কলারশিপ প্রদানের মাধ্যমে । পশ্চিমবঙ্গে মূলত দুইটি স্কলার্শিপ সবথেকে বেশি জনপ্রিয়।

একটি হচ্ছে উত্তরকন্যা’-বা নবান্ন স্কলারশিপ এবং অন্যটি স্বামী বিবেকানন্দ বা বিকাশ ভবন স্কলারশিপ । এর সাধারণ মানুষের মধ্যে অর্থাৎ সাধারণ পড়ুয়াদের মধ্যে প্রশ্ন আসতে থাকে যে কোন স্কলারশিপ সবথেকে বেশি লাভজনক হতে পারে ছাত্র-ছাত্রীদের পক্ষে । সেই ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা করবো আজকালের প্রতিবেদন

নবান্ন বা উত্তরকন্যা স্কলার্শিপ:- মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রিলিফ ফান্ড এর তহবিল থেকে দেয়া হয় এবং এটি অনলাইনে এবং অফলাইনে আবেদন করা যেতে পারে । যারা উত্তরবঙ্গে থাকে তারা অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে পারে ।এবং যারা দক্ষিণবঙ্গে থাকে তারা সরাসরি নবান্ন থেকে আবেদনপত্র জমা দিতে পারে । এক্ষেত্রে মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক ন্যূনতম ৬০% নাম্বার থাকা জরুরী । মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং নার্সিং পড়ুয়াদের জন্য স্কলারশিপ দেওয়া হয় ।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ বিকাশ ভবন স্কলারশিপ:-যারা প্রথমবারের জন্য উচ্চ মাধ্যমিক মাধ্যমিক বা কলেজের ফাইনাল ইয়ার পাস করে মার্কশিট হাতে পেয়েছে তারা শুধুমাত্র আবেদন করতে পারো ।। অপরদিকে যারা এর আগে একবারের জন্য হলেও আবেদন করে রেখেছিলে তারা শুধুমাত্র রিনুয়াল করবে । অর্থাৎ ধরুন আপনি যদি ক্লাস ইলেভেন থেকে টুয়েলভে ওঠার সময় স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর জন্য আবেদন করে থাকেন ।

তাহলে টুয়েলভ পাস করে যাওয়ার পর আপনাকে রিনুয়াল করতে হবে ।নতুন করে আর আবেদন করতে হবে না ।তবে আবেদন করার ক্ষেত্রে অতি অবশ্যই আপনাকে ৬০% নাম্বার নিয়ে পাস করতে হবে । নইলে কিন্তু গ্রাহ্য হবে না আবেদনকারী আবেদন পত্র ।স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর মাধ্যমে বার্ষিক ১২ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে পরীক্ষার্থীদেরকে । এবং এখানে কোন কাস্ট ভিত্তিতে আবেদন করা যাবে না ।

দুইটি স্কলার্শিপ এ আবেদন করার জন্য নূন্যতম যে নম্বর পেতে হবে তা সমান আগে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ ৭৫% নাম্বার না পেলে আবেদন করা যেত না কিন্তু এ বছর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেটি ৬০% ঘোষণা করেছেন। তবে একথা আপনাদের জানিয়ে রাখা দরকার যে উত্তরকন্যা স্কলারশিপ এর তুলনায় স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ অনেকখানি বেশি লাভজনক । কারণ উত্তর কোন স্কলারশিপ একজন পড়ুয়া বছরের সর্বাধিক ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত স্কলারশিপ পেতে পারে কিন্তু স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ একজন পড়ুয়া বছরে ১২-৯৬ হাজার টাকা পর্যন্ত স্কলারশিপ পেতে পারে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button