গাছের ডালে বড় বি-ষ-ধর কো-বরা, ছুঁয়ে প্রণাম করতে গেলেন গ্রামের বৃদ্ধা, ঘটলো বড় বি-পত্তি, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:সাপের মতো ভ-য়ঙ্কর প্রাণী এই দুনিয়ায় প্রায় নেই বললেই চলে। এই প্রজাতিটির বেশিরভাগ সাপ বিষ-হী-ন হলেও যেসব সাপ বি-ষ-ধর হয় তাদের এক ছোবলেই মানুষের প্রা-ণ সং-শয় দেখা দেয়। অনেক ক্ষেত্রে আকারে ছোট হলেও তাদের গায়ে অনেকটাই শ-ক্তি থাকে।অনেক জায়গাতেই তাই নিয়ম মেনে সাপকে পুজো করা হয় সমস্ত রকম বিপ-দ থেকে উদ্ধার পাওয়ার জন্য।

কিন্তু গ্রামে গঞ্জে খুব সহজেই এইসব বি-ষ-ধর সাপের উপ-দ্র-ব দেখতে পাওয়া যায়।অনেক ক্ষেত্রেই এই সব সাপ দেখতে পেলে মানুষ বিনা কারণেই মে-রে ফেলেন। যা হয়ত একেবারেই উচিত নয়। কারণ এতে তারা আরো ক্ষুদ্ধ হয়ে আ-ক্র-মণাত্ম-ক হয়ে ওঠে।

সাপে দংশন করলে অনেক জায়গাতেই ওঝা এবং পণ্ডিতদের সাহায্য নেওয়া হয়। কিন্তু সাপে কাটার আসল চিকিৎসা চিকিৎসকেরাই করতে পারেন তা হয়ত অনেকেই বিশ্বাস করেন না;যার ফলস্বরুপ প্রা-ণহা-নি হয় মানুষের। সোশ্যাল মিডিয়াতে সাপ সংক্রান্ত প্রায়শই নানান ধরনের ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা যায়। অন্যান্য সব ভিডিওর মত এই ভিডিওগুলিকেউ মানুষ অত্যন্ত আগ্রহের সাথে দেখে থাকেন।

সম্প্রতি এরকমই একটি ভিডিও নেটদুনিয়ায় লক্ষ্য করা গিয়েছে। যে ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে, একটি ঘরের মধ্যে কোবরা সাপ ঢুকে গিয়েছে কোন ভাবে। গ্রামবাসীরা এই কথাটি জানতে পেরে উদ্ধারকারীদের খবর দেয়।এরপর উদ্ধারকারী যুবকেরা এসে দ্রুত এই সাপটিকে খুব সহজেই উদ্ধার করে নিয়ে যান। তবে উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়ার সময় জানা যায়, সাপটি বাড়িতে এমনি ঢুকে যায়নি।

ওই বাড়ির মহিলারা সাপটিকে ধরে রেখে দিয়েছিলেন। এরপর উদ্ধারকারীরা ওই মহিলাদের বোঝাতে শুরু করেন যে এভাবে বি-ষ-ধর সরী-সৃপ কে বাড়িতে ধরে রাখা একেবারেই উচিত নয়। বিশেষত কোনরকম প্রশিক্ষণ ছাড়া এভাবে বাড়িতে সাপ ধরে রাখলে যেকোনো সময় বি-পদ হতে পারে।

যদিও ওই গ্রাম্য মহিলারা একথা মানতে নারাজ ছিলেন। এমনকি সাপটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যেতে দেখে অনেকেই কান্নাকাটি শুরু করে দেন।কিন্তু শেষ পর্যন্ত সমস্ত বাধা অতিক্রম করে ঐ উদ্ধারকারী দল সাপটিকে নিয়ে নির্দিষ্ট জায়গায় ছেড়ে দেয়। এই ভিডিওটি ইন্টারনেট জগতে বেশ ভাইরাল হয়ে উঠেছে। চাইলে আপনারাও এই ভাইরাল ভিডিওটি দেখে আসতে পারেন।

ভিডিওটি দেখার পর অনেকেই ওই উদ্ধারকারী যুবকদের প্রশংসা করেছেন। যেভাবে তারা দক্ষতার সাথে সাপটিকে ধরে গ্রামবাসীদের বুঝিয়েছেন তা অনেকটাই প্রশংসার যোগ্য। আমাদের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি আপনার কেমন লাগলো তা জানাতে অবশ্যই ভুলবেন না।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button