খুব সাবধান! এই লিংকে ক্লিক করলেই খালি হয়ে যেতে পারে সমস্ত ব্যাংক অ্যাকাউন্ট! সতর্ক করল SBI! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :-প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে প্রতারণার অভিযোগ । আমরা উন্নত হচ্ছি যতই ততই বাড়ছে এর সংখ্যা । এখনকার যুগে প্রতিটি বাড়িতেই প্রায় নেট ব্যাংকিং এর সুবিধা গ্রহণ করছে এই ধরনের মানুষ । বর্তমান তরুণ থেকে প্রবীণ সকলেই কিন্তু নেট ব্যাংকিং এর সুবিধা পেতে চাইছে ।

কারণ এই মুহূর্তে জমায়েত এড়িয়ে বাড়িতে বসে যাবতীয় ব্যাংকের কাজকর্ম শুধুমাত্র একটি স্মার্টফোনের মাধ্যমে হয়ে যাচ্ছে । তাই অত্যধিক মাত্রায় জনপ্রিয় হয়ে উঠছে নেট ব্যাঙ্কিং । কিন্তু যত জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ততই কিন্তু বাড়ছে প্রতারকদের সংখ্যা ।তার সাথে সাথে বাড়ছে প্রতারণার ঘটনা ।

ভারতের সবথেকে বড় রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক হয়েছে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া । প্রায় ৪৪ কোটি গ্রাহক রয়েছে এই ব্যাংকের । এবার সেই ৪৪ কোটি গ্রাহক দের নিরাপত্তার কথা ভেবে সম্প্রতি স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করল যা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সকলের জন্য । সে বিজ্ঞপ্তিতে তারা স্পষ্টভাবে জানিয়েছেন যে প্রতিনিয়ত আমাদের আশেপাশের বেড়ে চলেছে প্রতারকদের সংখ্যা ।

তাই বিভিন্ন লোভনীয় ভাবে আপনাদেরকে আকৃষ্ট করার চেষ্টা করবে তারা । কোন রকম ভাবে তাদের ফাঁদে পা দেবেন না । তার পাশাপাশি স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে যে ব্যাংক আপনার কাছ থেকে কখনোই আপনার কার্ডের নাম্বার বা ওটিপি এমনকি পিন চাইবে না । কাজেই এই ধরনের তথ্য যদি কেউ চেয়ে থাকে ব্যাংকের নাম করে তাহলে ভুলেও সেগুলো শেয়ার করবেন না ।

ব্যাঙ্কের তরফে ট্যুইট করে জানানো হয়েছে, প্রতারকরা ফ্রি গিফ্টের নামে একটি লিঙ্ক পাঠাচ্ছে গ্রাহকদের এবং তাতে ক্লিক করতে বলা হচ্ছে ৷ লিঙ্কে ক্লিক করলেই প্রতারকরা আপনার সম্বন্ধে সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হাতিয়ে নিচ্ছে, যা ব্যবহার করে আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলে নেওয়া হচ্ছে বা অন্য জায়গায় ট্রান্সফার করে দেওয়া হচ্ছে ব্যাংকে তরফ থেকে বারবার জানানো হচ্ছে আপনাদের কি এই ধরনের কোন রকম কোন মেসেজ এসেছে?

যদি এসে থাকে তাহলে অতি অবশ্যই সেগুলো কে এড়িয়ে চলুন । কারণ সেখানে দেওয়া প্রদত্ত লিংকটি যদি আপনি কোন রকম ভাবে ক্লিক করেন তাহলে কিন্তু সারা জীবন বা সারা বছরের উপার্জন ধুলিস্যাৎ হয়ে যেতে পারে মাত্র কয়েক সেকেন্ডে । যেহেতু প্রতিনিয়ত বাড়ছে প্রতারণা সংখ্যা তাই একপ্রকার চিন্তিত হয়ে পড়েছে গ্রাহকরা ৷

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button