গান গেয়ে মুগ্ধ করেলন স্বয়ং বাপ্পী লাহিড়ী কে! পেলেন সোনার চেন উপহার! সোশ্যাল মিডিয়ায় তু-মুল ভাইরাল যুবক।

নিজস্ব প্রতিবেদন:কিছু কিছু মানুষের কাছে প্রতিভা এমন এক জিনিস যা হঠাৎ করেই প্রকাশিত হয়ে পড়ে।অনেক মানুষ রয়েছেন যারা দীর্ঘদিন প্রশিক্ষণ না নেওয়া সত্ত্বেও অত্যন্ত সুন্দরভাবে যেকোনো নাচ বা গানে অংশগ্রহণ করে থাকেন। আমরা সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে প্রায়শই এই সব মানুষের বিভিন্ন ধরনের ভিডিও দেখতে পেয়েছি। যা খুব সহজেই অভিভূত করে ফেলেছেন নেট নাগরিকদের।

শুধুমাত্র এইসব ভিডিও নয় সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা প্রতিদিন নানান ধরনের আশ্চর্যকর ভিডিও ভাইরাল হতে দেখি। এর মধ্যে কিছু রয়েছে যা মানুষের মনকে অত্যন্ত আনন্দ দান করে।বিশেষত লকডাউন এর সময় ঘর বন্দী অবস্থায় থেকে অনেক মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জীবন যাপন করার চেষ্টা করেছেন।

প্রযুক্তির উন্নত হওয়ার সাথে সাথেই সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার দিন প্রতিদিন মানুষের মধ্যে বেড়েই চলেছে। আট থেকে আশি সকল বয়সের মানুষেরাই বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার বাসিন্দা হয়ে পড়েছেন। সম্প্রতি নেট মাধ্যমে একটি ভাইরাল ভিডিও লক্ষ্য করা গিয়েছে। এই ভিডিওটি ব্যাপক সাড়া ফেলে দিয়েছে ব্যবহারকারীদের মধ্যে।

হয়তো আপনার মনেও প্রশ্ন উঠছে এমন কি রয়েছে সেই ভিডিওতে? তাহলে আসুন আর দেরি না করে জেনে নেওয়া যাক! ভাইরাল ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ইন্ডিয়ান আইডল নামক একটি রিয়েলিটি শোয়ের কোন একটি সিজনে পবনদীপ নামের এক অংশগ্রহণকারী “কিসি নজর কো তেরা ইন্তেজার আজ ভি হায়” গানটি গেয়েছেন।তার গান শুনে বিচারক থেকে শুরু করে উপস্থিত দর্শকরা সকলেই অবাক হয়ে গিয়েছেন। এত কম বয়সে অসাধারণ গানের গলা হয়তো খুব কম মানুষেরই রয়েছে।

পবনদীপের গলা শুনেবিচারকের আসনে থাকা বাপ্পী লাহিড়ী পর্যন্ত অবাক হয়ে গিয়েছেন। শেষ পর্যন্ত তিনি এতটাই আপ্লুত হয়ে পড়েন যে,পবনদীপকে ডেকে এনে তার গলায় নিজের গলা থেকে সোনার চেন খুলে পরিয়ে দেন। বাপ্পি লাহিড়ীর এই কর্মকান্ড দেখে অনেকেই তার প্রশংসা করেছেন।

পাশাপাশি এই ধরনের প্রতিভা নিয়ে জন্ম নেওয়া পবনদীপ ইতিমধ্যেই নেট মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গিয়েছেন। চাইলে আপনারাও এই অসাধারণ ভাইরাল ভিডিওটি সহজেই দেখে আসতে পারেন। আপনাদের সুবিধার্থে প্রতিবেদনের সাথেই ভিডিওটি সংযুক্ত করা হলো। ভিডিওটি দেখার পর নিজের মতামত অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button