যশের অনুরোধে ‘কাশ্মীর কি কলি’ রূপে দেখা দিলেন অভিনেত্রী নুসরাত! সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-অভিনয়জগতে সাফল্য পেল তার ব্যক্তিগত জীবনে একাধিক কাটাছেঁড়া রয়েছে ।। নিখিল এর সাথে বিচ্ছেদ হওয়ার সময়কাল থেকেই জুড়ে গেছে যশ দাশগুপ্তের নাম তার সাথে । এমনটা সকলে প্রথমদিকে মনে করছিল যশ দাশগুপ্ত তার শুধুমাত্র প্রেমিক । কিন্তু তার সন্তানের বাবা হয়ে উঠবে যশ দাশগুপ্ত সেটা হয়তো আগে থেকে কেউ অনুমান করতে পারেনি ।

তবে নুসরাত জাহান এবং যশ দাশগুপ্তের উপর সর্বদা নজর থাকে মিডিয়ার সাংবাদিকদের সে ব্যাপারে নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে না । তারা কোথায় যাচ্ছে কখন কিভাবে সময় কাটাচ্ছে সবকিছু তাদের নখদর্পণে থাকে এবং তারা ক্যামেরাবন্দি করে প্রকাশ্যে আনতে চাই ।

নুসরত জাহান ও যশ দাশগুপ্তর প্রেম কাহিনি রীতিমতো চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে দেশজুড়ে। কিছুদিন আগে প্রকাশ্যে এসেছে নুসরত পুত্রের পিতৃপরিচয়, ঈশানের বার্থ সার্টিফিটিকেটে স্পষ্ট লেখা তাঁর বাবার নাম দেবাশিস দাশগুপ্ত ওরফে যশ দাশগুপ্ত। নুসরতের সঙ্গে শুধু খুল্লমখুল্লা প্রেম নয়, ঈশানের বাবা হিসাবেও এবার প্রকাশ্যে এসেছেন যশ দাশগুপ্ত ।

কিন্তু অন্তঃসত্ত্বা থাকাকালীন অবস্থাতে আমরা দেখেছিলাম যে নুসরাত জাহান সম্পর্কে কিভাবে কুরুচিকর মন্তব্য পেশ করা হয়েছিল । তার পাশাপাশি সমালোচনা যেন কিছুতেই তার পিছু ছাড়ছে না । এমতাবস্থায় অভিনেত্রী নিজেকে কিছুদিনের জন্য সরিয়ে রেখেছিলেন লাইট ক্যামেরা থেকে ।।তবে বেশিদিন নিজেকে বেশিদিন সরিয়ে রাখতে পারেননি ।।আবার ফিরে এসেছেন আগের অবস্থায়।

নুসরাত জাহান এবং যশ দাশগুপ্ত এবার কাশ্মীরে ঘুরতে গেছেন এবং সেখান থেকেই একাধিক ছবি শেয়ার করে চলেছেন তাদের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলের ।সেখানে নুসরাত জাহানকে সাজ-সজ্জায় দেখা গিয়েছিল ।যেখানে নুসরাত জাহান ক্যাপশন এ লিখেছেন কাশ্মীর কি কালী অর্থাৎ তিনি যশ দাশগুপ্তের জন্য কাশ্মীরের কালী রূপে সজ্জিত হয়েছেন। তেমনটাই বোঝাতে চেয়েছেন তিনি ।।পাশাপাশি সেই সমস্ত ছবিগুলো যে যশ তুলে দিয়েছিল তাও তিনি উল্লেখ করেছেন ছবির ক্যাপশনে ।এমনকি তারা ভিডিও করেছে যেখানে নৌকার মধ্যে একে অপরের হাত আঁকড়ে ধরছে এবং বোঝাতে চাইছে এই বন্ধন কখনোই ভেঙে যাবে না। ইতিমধ্যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে নেট মাধ্যমে পাশাপাশি ছবিগুলো জল্পনা সৃষ্টি করেছেন নেট মাধ্যমে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button