কিসের ফলে বাড়িতে বেশি আসে বিদ্যুৎ বিল? জেনে নিন তার আসল কারণ! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:দৈনন্দিন জীবনের সাধারণ মানুষের অন্যতম সমস্যা গুলির মধ্যে রয়েছে বাড়ন্ত বিদ্যুতের বিল। প্রতিনিয়ত অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিলেরফলে অনেকটাই সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। যদি আপনি এই সমস্যার ভুক্তভোগী হয়ে থাকেন তাহলে এই প্রতিবেদনটি আপনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। প্রসঙ্গত বিদ্যুতের বিল বেশি আসার নির্দিষ্ট কিছু কারণ রয়েছে। এই কারণগুলি সম্পর্কে জানতে পারলে অবশ্যই চেষ্টা সহকারে বিদ্যুতের বিল কমানো সম্ভব।

বিদ্যুৎ বিল বেশি আসার প্রথম কারণ নিউট্রাল এবং কমন আর্থিং কানেকশন। এনার্জি মিটার এর সাথে নিউট্রাল আর্থ তার কানেকশন করলে বিদ্যুৎ বিল অত্যন্ত বেশি আসে।সাধারণত বাড়িতে যাতে নিউট্রাল ফেলিওর না হয় সেই কারণেই এই নিউট্রাল আর্থ এর সাথে কানেকশন করা হয়।

এছাড়াও কয়েকটি বিশেষ সুবিধা রয়েছে।যদি সঠিকভাবে আর্থিং করা হয় তাহলে গ্রীষ্মকালে আপনার বাড়ির আলোগুলি পরিমাণে নিজের ক্ষমতা অনুযায়ী আলো দিতে সক্ষম হবে।যদি আপনার বাড়ির নিউট্রাল শক্তিশালী হয় তাহলে বাড়ির প্রতিটি ইলেকট্রিক বস্তু নিজের ক্ষমতা অনুযায়ী সমান ভাবে চলবে। এই কারণে বিদ্যুতের বিল বেশি আসতে পারে।

দ্বিতীয় কারণ হিসেবে আমরা বলব খারাপ মানের তারের কথা। বিদ্যুতের তারে ভেজাল থাকলে সমস্যা দেখা দেয়। খারাপ মানের তারে রেজিস্টেন্স বেশি থাকার কারণে বারবার ভোল্টেজ ড্রপ হয়। এটি বিদ্যুৎ বিল বেশি আসার একটি উৎকৃষ্ট কারণ।তাই অবশ্যই তার ব্যবহার করার আগে জেনে নিতে হবে সেটি পরিশুদ্ধ কিনা। বিশুদ্ধ তামার তারের রং তামাটে ধরনের হয়ে থাকে। বিদ্যুৎ বিল বেশি আসার আরেকটি কারণ হচ্ছে লুস কানেকশন।বাড়িতে ইলেকট্রিক কানেকশন করার সময় যদি কোনরকম দূর্বলতা থেকে থাকে তাহলে এই লুস কানেকশন সংক্রান্ত সমস্যা সৃষ্টি হয়।

বাড়িতে সাধারণত সুইচ, সকেট ইন্ডিকেটর প্রভৃতি ব্যবহার হয়ে থাকে। এগুলির কানেকশন লুস থাকলে বিদ্যুতের বিল বেশি আসতে পারে। কারণ কানেক্টিভিটি লুস হওয়ার কারণে মাঝেসাজেই পাওয়ার লস হয়ে থাকে। তাই অবশ্যই বাড়িতে ইলেকট্রিক কানেকশন করার সময় ভালো করে যাচাই করে নেবেন। না হলে ভবিষ্যতে সমস্যায় পড়বেন।

বিদ্যুৎ বিল বেশি আসার চতুর্থ কারণ হিসেবে বলা যায় খারাপ মানের মোটর এবং ফ্যানের কথা।বাড়িতে যেসব বৈদ্যুতিক যন্ত্রগুলি ব্যবহার হয়ে থাকে সেগুলির মধ্যে মোটর এবং ফ্যান থাকে। এগুলো খারাপ মানের হয়ে থাকলে বিদ্যুৎ বিল বেশি আসে। তাই অবশ্যই ভালো মানের মোটর বা ফ্যান ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button