সকল যুবক-যুবতী পাবে 4,000 টাকা করে? জানুন প্রধানমন্ত্রীর নতুন প্রকল্পের সত্যতা!

সকল যুবক-যুবতী পাবে 4,000 টাকা করে? জানুন প্রধানমন্ত্রীর নতুন প্রকল্পের সত্যতা!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- সোশ্যাল মিডিয়া, সোশ্যাল মিডিয়ার কাছে এমন একটা হাতিয়ার যার মাধ্যমে পৃথিবীর আনাচে কানাচে ঘটে যাওয়া একাধিক যাবতীয় ঘটনা সম্পর্কে আমরা অবগত থাকতে পারি। পাশাপাশি নতুন নতুন বন্ধুত্ব স্থাপন থেকে শুরু করে নিজেদের প্রতিভাকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরা পর্যন্ত সবকিছুই হয় এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে। এমনকি প্র-তারণার শি-কার হতে পারেন আপনি এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে।

মাঝেমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়াতে কেন্দ্রীয় সরকার বা রাজ্য সরকার নামে যে ধরনের খবর গু-লি প্রকাশিত হয় তার মধ্যে অধিকাংশ খবর ভুয়ো। এই ধরনের খবর থেকে বিরত থাকার চেষ্টা করুন। সম্প্রতি এমনটা জানা যাচ্ছে যে প্রধানমন্ত্রী একটি প্রকল্প ঘোষণা করেছেন যার মাধ্যমে রাজ্যের প্রতিটি বেকার যুবক যুবতীরা পাবে চার হাজার টাকা করে কিন্তু এই ঘটনার সত্যতা কতখানি সে বিষয় রয়েছে গভীর সংশয়।

সম্প্রতি কিছুদিন ধরে দুইটি মেসেজ সোশ্যাল মিডিয়াতে যথেষ্ট পরিমাণে ভাইরাল হয়েছে সেখানে জানানো হচ্ছে যে বেকার যুবক যুবতীদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী বিশেষ একটি প্রকল্প আনতে চলেছে এবং এই প্রকল্পের মাধ্যমে তারা 3000 থেকে 4000 টাকা আর্থিক অনুদান পাবে প্রতিমাসে। এর জন্য রেজিস্ট্রেশন করা হচ্ছে নিচের লিংকে। স্বাভাবিক ভাবেই বেকার যুবক যুবতীরা লিঙ্কে গিয়ে নিজেদের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করছে এই প্রকল্পের সুবিধা পাবার আশায়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এহেন একটি ছবি ঘুরে বেড়াচ্ছে। যেই ছবিটিতে লেখা রয়েছে, “দয়া করে মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। ‘প্রধানমন্ত্রী রামবাণ সুরক্ষা যোজনার’ জন্য চলছে রেজিস্ট্রেশন পক্রিয়া। এই প্রকল্পের আওতায় দেশের সকল যুবক-যুবতীরা পাবেন ৪,০০০ টাকা সহায়তা। অপরদিকে মিডিয়ায় কিছুদিন আগেই এরকম আরো একটি ম্যাসেজ ছড়িয়ে পড়েছিল। যেখানে কার্যত আবেদন পদ্ধতি থেকে সমস্ত খুঁটি নাটি বিষয় ও লিখে দেওয়া হয়েছিল।

ওই পোস্টে লেখা ছিল, ‘প্রধানমন্ত্রী বেকার ভাতা প্রকল্পের জন্য প্রি-রেজিস্ট্রেশন পক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে। এই প্রকল্পের আওতায় সমস্ত বেকার যুবক-যুবতীরায় পেয়ে যাবে প্রতি মাসে ৩,৫০০ টাকা। প্রি-রেজিস্ট্রেশনের জন্য নীচে দেওয়া লিঙ্কে ক্লিক করে নিজের ফর্ম পূরণ করুন।’ এর পাশাপাশি ওই পোস্টে জানানো হয়েছিল বয়স হতে হবে ১৮-৪০ এর মধ্যে।

কিন্তু পি আই বি এর তরফ থেকে এমনটা জানানো হয়েছে যে এই ধরনের কোন প্রকল্প কেন্দ্রীয় সরকার জারি করেনি। যার ফলে আপনারা কেউ সেই সমস্ত লিঙ্ক এ গিয়ে নিজেদের গুরুত্বপূর্ণনথি প্রদান করবেন না। এতে আগামী দিনে প্রতারণার শি-কার হতে পারেন আপনারা। এই কথাটা পিআইবি টুইটারের মাধ্যমে জানিয়েছে যার ফলে কার্যত চিন্তার মুখে পড়েছে লক্ষ লক্ষ বেকার যুবক-যুবতী কারণ ইতিমধ্যে অনেকেই সেই লিঙ্কে গিয়ে নিজেদের রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন।


Leave a Reply

Your email address will not be published.