মহালয়ার প্রাক্কালে দেবী সাজে দেখা দিলেন অভিনেত্রী দেবলীনা! সোশ্যাল মিডিয়ায় পেলেন প্রশংসা! ভাইরাল হল ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন :-পুজো মানেই আনন্দ পরিবেশ । বহুদিন ধরে মনের মধ্যে যে সমস্ত অনুভূতি গুলি আমরা সঞ্চয় করে থাকি তার বহিঃপ্রকাশ করার অন্যতম একটি প্রধান সময় হচ্ছে বাঙালির দুর্গাপূজা । কিন্তু পূজার আগে এভাবে নিজেকে হাসির খোরাক হতে হবে এমনটা ভাবতে পারেনি অভিনেত্রী দেবলীনা কুমার । কি কারনে হাসির খোরাক হলো সেটা তার থেকেও বড় হাস্যকর । বানান ভুলের জন্য নেট দুনিয়ার মানুষেরা দেভলিনা কুমার কে এক হাত নিলেন ।

অভিনয় জগতের পাশাপাশি মডেলিংয়েও স্বাবলম্বী ভূমিকায় প্রকাশ করেছে নিজেকে দেভলিনা কুমার । কিছুদিন আগে উত্তম কুমারের নাতি গৌরব চট্টোপাধ্যায় সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয় দেবলিনা সোশ্যাল মিডিয়াতে সক্রিয় থাকা এই অভিনেত্রী মাঝেমধ্যেই তরুণ প্রজন্মের বুকে ঝড় তুলে দিতে পারে সে ব্যাপারে নতুন করে আর বলার অপেক্ষা রাখে না । তবে সামনে মহালয়া ইতিমধ্যেই টলি পাড়াতে তার কাজকর্ম শুরু হয়ে গেছে । রেডিওতে বীরেন্দ্র কিশোর ভদ্রের মন্ত্র থেকে শুরু করে টিভিতে তার চিত্র দেখা মধ্য দিয়েই কিন্তু আমরা অনুভব করতে পারি ।

এবার মহালয়ার প্রাক্কালে বিশেষ সাজে সজ্জিত হয়ে হাসির খোরাক হতে হলো অভিনেত্রী দেবলীনা কুমারকে । তিনি এদিন নিজের নতুন রূপের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোষ্ট করেছেন এবং ক্যাপশনে লিখেছেন, “ঢাকেতে পরেছে কাঠি, পূজো হবে ফাটাফাটি। পূজো পূজো কত আশা, ইচ্ছে পূরণের অভিলাশা। –পূজার বাঁশী বাজে দূরে মা আসছেন বছর ঘুরে শিউলির গন্ধে আগমনী কাসের বনে জয়ধ্বনি নীল আকাশে মাকে খুঁজো হাসি খুশি কাটুক পূজো।

”ব্যাস, নেট জনতার কেউ কেউ এই ক্যাপশন নিয়েই দেবলীনা কুমারকে ট্রোল করতে শুরু করে দিলেন। কেউ লিখলেন, “দয়া করে বানান গুলো ঠিক লিখুন। সঠিক বানান না জানলে জেনে লিখুন। অভিলাষা, পুজো।” কেউ আবার কাশ ফুল বানানও ঠিক করে লিখে দেন। অবশ্য দেবলীনা এর উত্তর দিয়েছেন। তার কথায়, “আপনি ঠিক করে দিন”। তৎক্ষণাৎ ওই মানুষটি উত্তর দেন, “দিয়েছি, আপনার post, edit তো আপনাকেই করতে হবে”। যদিও এই ধরনের ঘটনা মাঝে মধ্যেই দেখা যায় তবুও এই সমস্ত ঘটনাগুলো কিছুটা হলেও প্রভাব ফেলে তাদের জনপ্রিয়তায় ।।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button