রাস্তার মাঝখান দিয়ে যাচ্ছিলো ছোট্ট কো-বরা সাপ, সা’পের লেজে কা-মড় বসালো কুকুর, ব্যাপক ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রায়ই বিভিন্ন অবিশ্বাস্য ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা যায়। সাধারণত খালি চোখে এসব জিনিস আমাদের চোখে পড়া মুশকিল।কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে এসব জিনিস খুব সহজেই আমাদের চোখের সামনে চলে আসছে।যেমন—কিছুদিন আগেই আমরা এমন একটি ভাইরাল ভিডিও দেখেছিলাম যেখানেই দেখা যাচ্ছিল একটি গ্রামের শৌচালয়ের মধ্যে পাইপের মাঝ বরাবর একটি কোবরা সাপ ঢুকে গিয়েছে।

প্রথমে সাপটিকে বের করতে বেশ অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয় উদ্ধারকারীদের। কিন্তু পরবর্তী সময়ে খুব সহজেই স্টিলের লাঠির সাহায্যে সরীসৃপ টিকে বের করে আনেন তারা। দেখা যায় এটি ছিল বি-ষ-ধর সাপের প্রজাতি কো-ব-রা। এভাবে তাকে বের করে আনা হয় উদ্ধারকারী যুবকদের ছো-ব-ল দেওয়ার চেষ্টা করে সে। কোবরা সাপের বিষ নিউ-রো-টক্সি-ক,অর্থাৎ এই সাপের দংশ-ন এর ফলে প্রাণীর স্নায়ুতন্ত্র সোজাসুজি আ-ক্রা-ন্ত হয়।এমনকি জানা গিয়েছে স্নায়ুতন্ত্র পক্ষা-ঘা-ত-গ্রস্ত অবধি হয়ে যেতে পারে।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত দেখা যায় যুবকদের সাহসিকতার দরুন সাপটি নিজের ইচ্ছায় সক্ষম হয়নি। এই ভিডিওটি বেশ ভাইরাল হয়েছিল দর্শকদের মধ্যে। সম্প্রতি আবারও একটি ভিডিও নেট দুনিয়ায় সাড়া ফেলে দিয়েছে। আমরা সকলেই জানি সাধারনত শ-ক্তি-শালী প্রাণীর কাছে দুর্বল প্রাণীরা হেরে যায়।

যাই হোক ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে একটি রাস্তার মধ্যে, ছোট্ট একটি কোবরা সাপ হেঁটে চলে যাচ্ছে। কিন্তু হঠাৎ করেই সেই কোবরা সাপ টিকে আ-ক্র-মণ করে একটি কুকুর। ছোট হলেও নিজের উপর হওয়া আ-ক্র-মণের প্রতি-রোধ করতে শিখেছে সাপটি। তাই কুকুরটি তার লেজে কামড় দেওয়ার সাথে সাথেই কুকুরটিকে -ছো-ব-ল মারতে উদ্যত হয় সে।

কিন্তু বড় হওয়ার দরুন খুব সহজেই সাপের ছোবল থেকে নিজেকে -প্রাণে বাঁচিয়ে নেয় কুকুরটি।মাত্র ২৫ সেকেন্ডের ভিডিওটির শেষ অংশে দেখা যায় সাপের লেজে কা-ম-ড় দিয়ে কুকুরটি তাকে মুখে তুলে নেয়। যদিও শেষ পর্যন্ত কি হল তা দেখা যায়নি! তবে ভিডিওটি দেখে অনেক দর্শকরাই আপ্লুত হয়েছেন। কারণ আপাতদৃষ্টিতে এসব ল-ড়া-ই চোখে দেখা যায় না। সোশ্যাল মিডিয়া থাকার কারণেই আমরা এইসব ভাইরাল ভিডিও সম্পর্কে জানতে পারি। তাই অবশ্যই দিনের অন্তভাগে আমাদের সোশ্যাল মিডিয়াকে কুর্নিশ জানানো উচিত।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button